অনলাইন কেনাকাটা একটা দারুন আবিস্কার সর্বসাধারণকে বাড়িতে বসে কেনাকাটা করার সুযোগ করে দেবার ব্যাপারে। আর দোকানে দকাএ ঘরার কোন প্রয়োজন নেই, সঠিক বস্তু খোঁজার প্রয়োজন নেই, সেলস ম্যানদের বিরক্তকর উৎসাহ শোনার আর কোন প্রয়োজন নেই। আমরা সাধারনত যেরকম ভাবে কেনাকাতি করতাম তার থেকে সম্পূর্ণ মুক্তি দিয়েছে এই ই-কমার্স। কিন্তু, সব কিছুর মতই এখানে সবটাই ভালো নেই। যদিও ই-কমার্সের কম্পানিরা চেষ্টা করছে, সেই সব দূর করার, তাও কিছু কিছু সমস্যা থেকেই গেছে।

মহিলাদের কি ভাবে সাইবার অপরাধীরা বিরক্ত করে দেখে নিন

দামি ব্র্যান্ডের আসবাব কম দামেঃ

বিভিন্ন সোশ্যাল নেটওয়ার্কের সাইটে অনেক সময়েই বিজ্ঞাপন দেখা যায়, যেখানে ব্যাগ, জামাকাপড়, দামি ফোন আর সাজ সজ্জার দামি জিনিস অনেক কম দামে বিক্রি হয়। আসলে, সেগুলি কোন প্রকৃত বিক্রেতাই নয়। মহিলাদের আকৃষ্ট করে, তাদের থেকে টাকা নিয়ে চম্পট দেয়।

ওজন কমানোর প্রাকৃতিক পদ্ধতিঃ

আমাদের সোশ্যাল নেটওয়ার্কে বা ম্যাসেজিং ক্ষেত্রে এই সমস্ত বিজ্ঞাপন দেখা যায়। মহিলারা খুব আকৃষ্ট হয় এসবের প্রতি আর শেষে টাকা দিয়ে জালিয়াতির শিকার হয়।

দামি গয়নাঃ

সাইবার অপরাধীরা গহনার ওয়েবসাইট স্পুফ করে নিয়ে আকর্ষণীয় ছাড় দিতে পারে। আপনি একটা জিনিস কিনবেন পয়সা দিয়ে আর শেষে অন্য একটা জিনিস পাবেন। শেষে যখন প্রকৃত ওয়েবসাইটে আপনি কমপ্লেইন করতে যাবেন, তার সেই ব্যাপারটা অস্বীকার করবেন, কারন আপনি তো তাদের থেকে কিছু জিনিস কেনেনই নি।

অনলাইন কেনাকাটায় বিপদ

কিছু প্রশ্ন যার উত্তর আপনার জানা উচিত অনলাইন সপিং করতে যাবার আগে।

অনলাইন সপিং এর কিছু টিপস

  • আপনার কম্পিউটারের ওএস আপডেট রাখুনঃ

আপনার কম্পিউটার অ্যান্টিভাইরাস, অ্যান্টিস্পাইওয়ার, বা ইত্যাদি সব কিছু ঠিকঠাক আছে কিনা দেখে নিন।

  • কেনাকাটা করুন শুধুই বিশ্বাসযোগ্য সাইট থেকেঃ

যেই সাইট থেকে কেনাবেচা করছেন, তার সম্বন্ধে ভালো করে জেনে নিন আগে। তাদের ফোন নম্বর ইত্যাদি সব কিছু নিজের কাছে নিয়ে নিন আগে। ক্রেতাদের কথা, মন্তব্য সব দেখে নিন আগে থেকে।

  • সেই সাইটের সুরক্ষা সম্বন্ধনিয় সকল কিছু জেনে নিনঃ

দেখে নিন যে সেই সাইটের এস এস এল সার্টিফিকেট আছে কিনা। মানে আপনি https দেখতে পাবেন।

  • আপনার ডিজিটাল প্যামেন্টকে লক্ষ্য রাখুনঃ

আপনার ক্রেডিট কার্ড বা ইত্যাদি তে যেই নাম দেখাচ্ছে প্যামেন্ট করার সময়ে সেটা লক্ষ্য রাখুন।

  • কার্ড এর তথ্য বা ব্যাঙ্কের তথ্য ওয়েবসাইটে দেবেন নাঃ

আপনার কম্পিউটারের মধ্যে যদি কার্ডের ডেটা সেভ করে ভুল করবেন না। ইন্টারনেটের কানেকশন বন্ধ করে কম্পিউটার বন্ধ করে দিন। অপরাধীরা ম্যালিসিয়াস সফটওয়্যার দ্বারা আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য চুরি করতে পারে।

  • অজানা ইমেইল এর উত্তর দেবেন না কেনা কাটার জন্যঃ

‘আপনার প্যামেন্ট কে কনফার্ম করুন’ এই সমস্ত ইমেইল আপনি পেতে থাকবেন। মনে রাখবেন যে কোন বৈধ ব্যবসায়ী এরকম মেল করেন না। যদি এরকম মেল পান, তবে তৎক্ষণাৎ সেই ব্যবসায়ীকে সেই মেলের সম্বন্ধে সুচিত করুন।

  • দ্রুত পাসওয়ার্ড পালটে দিনঃ

এটি পাসওয়ার্ড দীর্ঘ দিন ধরে রাখবেন না। ব্যাঙ্ক এক্যাউন্টে বা চক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডের মধ্যে পাসওয়ার্ড সিঘ্রই পালটে দিন।

  • আলাদা ওয়েবসাইটে আলাদা পাশওয়ার্ড ব্যবহার করুনঃ

সব সময়ে আলাদা আলাদা সাইটে আলাদা আলাদা পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। এটা ঠিক যে এতগুলো পাসওয়ার্ড মনে রাখা কঠিন, কিন্তু এতে একটু বেশী সতর্কতা নেওয়া যায়।

সুরক্ষিত নেটওয়ার্ক ব্যবহার করুনঃ

সব সময়ে সুরক্ষিত নেটওয়ার্ক ব্যবহার করুন। সর্বসাধরনের ওয়াই-ফাই সাইবার আক্রমনের একটি বিশেষ সুযোগ।

ছাড় বা পুরস্কার পাওয়া হয়েছে এই লিঙ্কগুলোতে ক্লিক করবেন নাঃ

সাইবার অপরাধীরা ছাড় দেওয়া বা পুরস্কার পেয়েছেন এই রকম ঘোষণা করে আপনার অ্যাকাউন্ট নম্বর চেয়ে আপনার সাধে অপরাধ মূলক কাজ করতে পারেন। তাই এঁদের থেকে বিরত থাকুন।

Page Rating (Votes : 0)
Your rating: